আইসিসি-বিসিসিআই দ্বন্দ্ব চরমে, ২৭০০ কোটি টাকা চাইলেন সৌরভ

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) মসনদে বসেই আইসিসিকে তোপ দাগলেন সৌরভ গাঙ্গুলী। একই সঙ্গে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থার সঙ্গে সুষ্ঠুভাবে কাজ করার বার্তাও দিলেন তিনি। সংঘাত সত্ত্বেও আইসিসির সঙ্গেই কাজ করতে বদ্ধপরিকর দাদা।বুধবার বিসিসিআই সভাপতির দায়িত্ব হাতে নিয়েছেন সৌরভ। এর পর তিনি বলেন, আইসিসির ৭০-৮০ শতাংশ অর্থ সরবরাহ করে ভারত। সে ক্ষেত্রে তাদের কাছ থেকে আমাদের আরও বেশি টাকা পাওয়া উচিত। গেল কয়েক বছর ধরে সেখান থেকে কোনো টাকা পাই না আমরা। এ ব্যাপারে শিগগির ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থার সঙ্গে আলোচনায় বসবে ভারতীয় বোর্ড বলে জানান তিনি।

আইসিসির কাছে বকেয়া ৩৭২ মিলিয়ন ডলার দাবি করেছেন সৌরভ, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৭০০ কোটি টাকা। তবে ক্রিকেটের কল্যাণে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে সুষ্ঠুভাবে কাজ করারও বার্তা দিয়েছেন তিনি।বিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি শশাঙ্ক মনোহর এখন আইসিসির চেয়ারম্যান। বেশ শক্তভাবে এ পদ সামলাচ্ছেন তিনি। মূলত তার কঠোর অবস্থানের কারণেই বিশ্ব ক্রিকেটের দুই কর্তা সংস্থার সংঘাত চরমে উঠেছে।

আইসিসি চেয়ারম্যান হিসেবে শশাঙ্কের কাজের ধরন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ এন শ্রীনিবাসন, অনুরাগ ঠাকুরের মতো ক্রিকেট ব্যক্তিত্বরা। অতীতে তারা বিসিসিআইয়ের সভাপতির পদও সামলেছেন। সেই দলে সৌরভও। বোর্ডের দায়িত্ব নেয়ার আগেই তা স্পষ্ট হয়ে যায়। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, আইসিসির প্রায় অর্ধেক শেয়ারহোল্ডার বিসিসিআইয়ের প্রতি অবহেলা কোনোভাবেই মেনে নেয়া হবে না।অধিকন্তু শশাঙ্কের সঙ্গে সৌরভের সম্পর্ক সাপেনেউলে। ২০০৪ সালে ভারতীয় দলের অধিনায়ক থাকার সময় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে সবুজ ঘাসসংবলিত উইকেট বানানো নিয়ে শশাঙ্কের সঙ্গে সংঘাতে জড়ান সৌরভ। এখন সেই দ্বন্দ্ব মেটাতে কে এগিয়ে আসেন, সেটিই দেখার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares