আমরা দান বা অনুগ্রহ চাইনি, বাবরি মসজিদ আমাদের বৈ’ধ অধিকার : ওয়াইসি

বাবরি মসজিদ আমাদের বৈধ অধিকার। আমরা ভূমির জন্য ল’ড়াই করিনি।আমরা দান কিংবা অনুগ্রহ চাইনি। আমাদের ভিক্ষুক ভাববেন না। আমরা দেশের সম্মানিত নাগরিক বলে মন্তব্য করেছেন সর্বভারতীয় মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি।ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলো মুসলমানদের ধোঁ’কা দিয়েছে বলে দা’বি করে সুপ্রিমকো’র্টের রায় নিয়ে কংগ্রেসের প্র’তিক্রি’য়ারও নিন্দা জানিয়েছেন এ রা’জনীতিবি’দ। সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজবাদী পার্টি ও ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির মতো কথিত ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলোর নীরবতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ওয়াইসি।

এমপি ওয়াইস বলেন, আজ মুসলমানরা কী দেখতে পাচ্ছেন? সেখানে একটি মসজিদ ছিল, কয়েকশ বছর ধরে, সেটি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এখন সেখানে মন্দির নির্মাণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। জমিটি এখন রাম লালার অধিকারে চলে যাবে।তিনি বলেন, ‘কোনো এক ব্যক্তি যদি আপনার বাড়ি ভে’ঙে ফেলেন, আপনি সালিশে গেলেন, কিন্তু বিচারক আপনার বাড়িটি তাকেই দিয়ে দিলেন, যিনি সেটি গুঁড়িয়ে দিয়েছেন। আর আপনাকে বিকল্প একখণ্ড ভূমি দিলেন। তখন আপনার কেমন লাগবে?’

হায়দরাবাদের এই এমপির প্রশ্ন হচ্ছে- যদি মসজিদটি অ’বৈধভাবেই স্থা’পিত হয়ে থাকে, তা হলে এল কে আদভানিসহ অন্যদের কেন বি’চারের কাঠগ’ড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে। আর বৈ’ধ জায়গায় হলে কেন সেই জমি তাকে দেয়া হলো।বি’চার না মানায় যারা তার সমালোচনা করেন, তাদের তুলাধোনা করলেন ওয়াইসি। তিনি বলেন, রায়ের বি’রো’ধিতা করার গণতান্ত্রিক অধিকার তার রয়েছে। মসজিদ নির্মাণে বিকল্প পাঁচ একর জমির প্রস্তাব দিয়ে মুসলমানদের অ’পমা’নিত করা হয়েছে বলে মনে করেন মজলিস-ই-ইত্তেহাদুলের এ নেতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares