কোচের জন্য মরতে পারেন এমবাপ্পে!

ফ্রান্সের স্বপ্নের বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম সারথি ছিলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। রাশিয়ার বিশ্বমঞ্চে আলো ছড়িয়ে পিএসজির এই তরুণ ফরওয়ার্ড হয়েছেন উদীয়মান সেরা। বিশ্বকাপ ট্রফি জয়ের সেই যাত্রায় ফ্রান্সের প্রধান কোচ দিদিয়ের দেশামের তুরুপের তাস ছিলেন এমবাপ্পেই।বিশ্বকাপের ওই সময়ই গুরু-শিষ্যের রসায়ন দারুণভাবেই জমে উঠেছে। মাঠের বাইরেও দেশামের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে এমবাপ্পের। সেই সম্পর্কের গভীরতা এতটাই যে, গুরুর জন্য মরতে পারেন শিষ্য! শনিবার প্রধান কোচের প্রতি এভাবেই সম্মান জানালেন এমবাপ্পে।ইনজুরির কারণে শুক্রবার আইসল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে পারেননি এমবাপ্পে। তাকে ছাড়াই ফ্রান্স জিতেছে ১-০ গোলে। সোমবার তুরস্কের বিরুদ্ধে ফরাসিদের অগ্নিপরীক্ষার ম্যাচেও থাকছেন না পিএসজি তারকা। এমবাপ্পে না থাকায় স্বাভাবিকভাবেই হতাশ প্রধান কোচ দেশাম।ম্যাচটি খেলতে না পারায় খারাপ লাগছে এমবাপ্পেরও।

তবে দেশাম চাইলে কিছুটা ঝুঁকি নিয়ে এমবাপ্পেকে মাঠে নামাতে পারতেন। কিন্তু শিষ্যকে নিয়ে কোনো ঝুঁকির পথে হাঁটেননি দেশম। কোচের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছেন এমবাপ্পে। টিএফওয়ানকে তিনি বলেছেন, ‘আমার জন্য কোনটা ভালো এটা দেশাম ভালোভাবেই জানেন।’এমবাপ্পে আরো বলেছেন, ‘আমি জানি কোচ আমার ওপর বিশ্বাস ও আস্থা রাখেন। তিনি একবার এটা করেছেন। আমি চেষ্টা করি প্রতিদান দেওয়ার। আমি তার জন্য মাঠে মরতেও রাজি আছি। তিন যদি আমাকে শুধু গোলের জন্য খেলতে বলেন আমি তাই করব।’আরো পড়ুন…..গেল ৪ মাসে ৪৬টি আর ৫ বছরে বন্ধ হয়েছে প্রায় দেড় হাজার পোশাক কারখানা। বন্ধ এসব কারখানার শ্রমিকরা অন্য কারখানায় চাকরি নিয়েছেন। অনেকেই চলে গেছেন অন্য পেশায়। এতে উদ্বেগের কিছু নেই বলে মনে করেন শ্রমিক নেতারা। তবে এসময়ে একটু একটু করে ১২ বিলিয়ন ডলারের তৈরি বাজার হারিয়েছে বাংলাদেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares