দেশের অবস্থা নিয়ে সবাই গভীরভাবে উদ্বিগ্ন: ড. কামাল

দেশের অবস্থা নিয়ে সবাই গভীরভাবে উদ্বিগ্ন বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। শুক্রবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি আয়োজিত ‘বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জাতীয় সরকারের অপরিহার্যতা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।এসময় তিনি আরও বলেন, ধর্ষণের পর হত্যা, আইনের শাসন অনুপস্থিত, প্রমাণ দিতে বেশি কিছু লাগে না। পত্রিকাগুলো খুলে দেখেন, ঘটনাগুলো ক্রমাগত ঘটছে। এই সরকারকে তো আমরা ভোট দেইনি। তাদের এই কার্যকলাপের জন্য আমরা তাদের প্রত্যাখান করতে বাধ্য।

সেটা নিয়ে কোনো দ্বিমতের প্রয়োজন নেই। এখানে কেউ দ্বিমত করবেও না।ক্যাসিনো বিএনপির সময়ে হয়েছিল এ বিষয়ে ড. কামাল বলেন, আমিতো বিএনপির সমর্থক ছিলাম না। আমিও তাদের সমালোচনা করেছি। গত দশ বছর তো বিএনপি ক্ষমতায় ছিল না। এই দশ বছরে ক্ষমতাসীনরা যা করেছে, সেই ক্রেডিটও তারা বিএনপিকে দিতে চায়। বিএনপি অনেক কিছু করতে পারে। কিন্তু বিগত দশ বছর তারা ক্ষমতায় নাই। এই সময়ে যা হয়েছে সেটাও বিএনপি করেছে, এই অভিযোগ গ্রহণযোগ্য না।তিনি আরও বলেন, আমি মনে করি উচিত কথা যেগুলো বলা হয়েছে এটা সবাই প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে দেখছেন। দুর্নীতি কোন জায়গায় চলে গেছে। অর্থনীতি কীভাবে ধ্বংস হচ্ছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি। বিশেষ করে ব্যাংকিং সিস্টেমকে যেখানে নিয়ে আসা হয়েছে। এ নিয়ে বেশি বলতে চাই না, এতে আরও ক্ষতি হবে।আলোচনা সভায় জেএসডি সভাপতি আসম আব্দুর রবের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-সম্পাদক শহীদ ‍উদ্দিন মাহমুদ স্বপনের পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন-জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল অব. সৈয়দ মুহম্মদ ইব্রাহিম, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরী, নাগরিক ঐক্য’র আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, বিকল্প ধারা বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক শাহ আহমেদ বাদল, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares