যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে যুবককে বেঁধে ময়লা পানি খাওয়ানোর ভিডিও ভাইরাল

বরিশালের হিজলা উপজেলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামে এক যুবককে পিঠমোড়া দিয়ে হাত বেঁধে নির্মমভাবে নির্যাতন করে জোড়পূর্বক ময়লা পানি খাওয়ানোর ঘটনার একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।ঘটনার পর নির্যাতিত যুবক ও নির্যাতনকারী সবাই আত্মগোপন করেছেন। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। নির্যাতিত ওই যুবকের আজম ব্যাপারী (২৫)। তিনি হিজলা উপজেলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামের বাসিন্দা মহিউদ্দিন ব্যাপারী ছেলে।গত সোমবার রাতে আলোচিত ওই ভিডিও ক্লিপটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এতে দেখা যায়, আজমের হাত পিঠমোড়া দিয়ে বাঁধা অবস্থায় কয়েকজন ব্যক্তি তার উপর নির্যাতন চালাচ্ছে। এর এক পর্যায়ে ওই যুবকের বুকে এক ব্যক্তি পা দিয়ে চেপে ধরে জোরপূর্বক বদনায় থাকা ময়লাযুক্ত পানি খাওয়াচ্ছেন তারা।

এ সময় ওই যুবক নিজেকে রক্ষার জন্য ধস্তাধস্তি করলেও হাত বাঁধা থাকায় শেষ রক্ষা হয়নি তার। গত সোমবার ওই ফুটেজটি স্থানীয় এক সাংবাদিক ইউটিউব থেকে ডাউনলোড করে তিনি তার ফেসবুক পেজে আপলোড করলে ভিডিওটি ভাইরাল হয়। ফুটেজে দেখা যায়, স্থানীয় মাহবুব সিকদারের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন আজম ব্যাপারীর উপর এই নির্যাতন চালায়। তবে ঘটনাটি কবে ঘটেছে তা সুনির্দিষ্টভাবে কেউ জানাতে না পারলেও গত ৩০ সেপ্টেম্বর এই ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় সূত্রগুলো দাবি করেছে। ব্যবসা ও জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা স্থানীয়দের।আজমকে নির্যাতনে নেতৃত্বদানকারী মাহবুব সিকদার হরিনাথপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এছাড়া, বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমেও বলা হয়েছে মাহবুব যুবলীগের সদস্য।বরিশালের পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি তিনি সোমবার সকালে জেনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares