যুবলীগ নেতা সম্রাট গ্রেফতার

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।চলমান ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার ভোর ৫টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১।র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।চলমান ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার ভোর ৫টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১

।র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।চলমান ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার ভোর ৫টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১।র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।সৌদি আরব ও উপসাগরীয় দেশবিষয়ক এই বিশেষজ্ঞ বলেন, সৌদির নিরাপত্তা দিতে তার সক্ষমতার ওপর আত্মবিশ্বাস কমে গেছে। আর এটা তার পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা নীতিরই ফল।প্রতিদ্বন্দ্বীদের তুচ্ছ করে বছর দুয়েক আগে সিংহাসনের উত্তরসূরি হওয়ার পর থেকে তার বিরুদ্ধে ফুঁসতে থাকা অসন্তোষে ইন্ধন জুগিয়েছে এ হামলা।দুর্নীতির অভিযোগে সৌদি আরবের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে তিনি ধরপাকড় ও গ্রেফতার অভিযান চালিয়েছেন।প্রতিবেশী ইয়েমেনে ইরানসংশ্লিষ্ট হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ব্যয়বহুল যুদ্ধের কারণে দেশের বাইরে সুনাম খুইয়েছেন এমবিএস। হুতিদের বিরুদ্ধে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলায় হাজার হাজার বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন।এতে দেশটিতে ব্যাপক মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। অর্থনীতি ভেঙে পড়ায় দুর্ভিক্ষের কিনারে গিয়ে ঠেকেছে ইয়েমেন।এর পর বছরখানেক আগে ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে নির্মমভাবে হত্যার পর আন্তর্জাতিক সমালোচনার মুখে পড়েন যুবরাজ। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ বলছে, মোহাম্মদ বিন সালমানই এ হত্যার নির্দেশ দিয়েছেন।তবে সিবিএসকে তিনি বলেন, খাসোগিকে হত্যায় তিনি নির্দেশ দেননি। তবে সৌদির কার্যত নেতা হিসেবে শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ দায়ভার তার কাঁধেই পড়ে।সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের বলেন, কর্তৃত্ব ও অনুমতির বাইরে গিয়ে সৌদি এজেন্টরা খাসোগিকে হত্যা করেছেন। গত ২৪ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে কাউন্সিল অন ফরেন রিলেশন থিংকট্যাংক আয়োজিত একটি আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন।সৌদি আরবের কয়েকজন সমালোচক বলেন, ইরানের প্রতি এমবিএসের আগ্রাসী পররাষ্ট্রনীতি এবং ইয়েমেন যুদ্ধে জড়িত হওয়ার সুবাদে সৌদি আরব হামলার শিকার হয়েছে।পাঁচটি সূত্র ও এক জ্যেষ্ঠ কূটনৈতিক সূত্র জানায়, প্রতিরক্ষা খাতে কোটি কোটি ডলার খরচ করেও হামলা থেকে সৌদিকে যুবরাজ রক্ষা করতে না পারায় তারা হতাশার কথা জানিয়েছেন।সাম্প্রতিক নিউইয়র্কে দেয়া বক্তব্যে জুবায়ের বলেন, সৌদি আরবের দিকে ধেয়ে আসা শত শত দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ করেছে আমাদের বিমান প্রতিরক্ষাব্যবস্থা। ১৪ সেপ্টেম্বরের হামলা শনাক্ত করতে ব্যর্থতার ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।তিনি বলেন, ৩০০ ফুট উচ্চতা দিয়ে উড়ে আসা ছোট বস্তু শনাক্ত করা খুবই কঠিন।কয়েকজন সৌদি অভিজাত বলেন, ক্ষমতায় নিজের নিয়ন্ত্রণ সংহত করতে যুবরাজের চেষ্টা দেশটিকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।সরকারি চক্রের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, এমবিএস এমন সব কর্মকর্তাকে বসিয়েছেন, যারা আগের লোকদের তুলনায় কম অভিজ্ঞতা সম্পন্ন।সিংহাসনের উত্তরসূরি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন মোহাম্মদ বিন নায়েফ। বছর দুয়েক আগে তাকে সরিয়েই পদটি দখল করেছেন মোহাম্মদ বিন সালমান।মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে দুই দশকের অভিজ্ঞতা ছিল সাবেক যুবরাজ নায়েফের। দেশের পুলিশ ও গোয়েন্দা বাহিনীর দায়িত্বে ছিলেন তিনি। এ কাজে তার স্থলাভিষিক্ত হিসেবে ৩৩ বছর বয়সী এক চাচাতো ভাইয়ের নাম ঘোষণা করেছেন এমবিএস।এর আগে গোয়েন্দা ও সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রমের গুরুত্বপূর্ণ আওতাগুলোকে রাজকীয় আদালতের আওতায় তিনি নিয়ে এসেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares