শ্মশানে নড়ে উঠল লাশ, এরপর…

চিতায় তোলার সময়ও আচমকা নড়ে উঠল লাশ। তাহলে কী প্রাণ রয়েছে দেহে! নাকি ভূতে ভর করেছে? আগপিছ না ভেবে দৌড় দিলেন আধিকাংশ শ্মশানযাত্রী। হাতেগোনা যে ক’জন ছিলেন তারা দুঃসাহসে ভর করে ছুটেছিলেন ডাক্তার ডাকতে। ডাক্তার এসে সব দেখে জানান এই ব্যক্তি বেঁচে আছেন!ঘটনা ওড়িশার গঞ্জাম জেলার কপকহালা গ্রামের। মৃত ভেবে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া ব্যক্তির নাম সীমাচসল মল্লিক। কোনও কারণে সাময়িক তাঁর হৃদস্পন্দন স্তব্ধ হয়ে গেছিল। এরপরেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে।

স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, গবাদি পশু চরাতে মালিক শনিবার জঙ্গলে গেছিলেন। সন্ধ্যায় ছাগল, ভেড়া সব ফিরে এলেও তিনি ফেরেননি। পরের দিন গ্রামের মানুষ তাকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পায়। শরীরে প্রাণের স্পন না থাকায় মৃত ভেবে বাড়িতে নিয়ে আসে। এরপর শুরু হয় সৎকারের আয়োজন।পুরোটা সময় কোনো শ্বাস-প্রশ্বাস না থাকলেও শ্মাশানে যেতেই জীবন্ত হয়ে ওঠেন মৃত মল্লিক!

চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পর ডাক্তার জানান, প্রচণ্ড জ্বরের ঘোরে সাময়িক অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন পশুপালক। অতি ক্ষীণ হয়ে গিয়েছিল তার হৃদস্পন্দনও। তাই সবাই তাকে মৃত ভেবে ভুল করেন। চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ এবং স্বাভাবিক। তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares