সাকিবকে দুটো সিরিজে নিষিদ্ধ করে সচেতন করে দিতে পারতো আইসিসি : পাইলট

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও আইসিসিকে না জানানোর কারণে বাংলাদেশ দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে আইসিসি। পরবর্তীতে শাস্তি মেনে নেওয়ায় ১ বছরের শাস্তি স্থগিত করা হয়েছে। এবার সাকিবের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলট। শাস্তির পরিমাণ বেশি হয়ে গেছে বলেই জানিয়েছেন তিনি। তার মতে, শাস্তি হিসেবে প্রথমে সাকিবকে দুটো সিরিজ থেকে নিষিদ্ধ করে সচেতন করে দিতে পারতো আইসিসি। পরবর্তীতে একই ভুল করলেন বড় শাস্তি দিলে সেটা দুই পক্ষের জন্যই ভালো হতো।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘শাস্তিতো অবশ্যই বেশি। আমার কাছে মনে হয় এটা যদি না বলার জন্যই এরকম হয়ে থাকে, তবে এটা আসলে একটা ক্যারিয়াই শেষ করে দেওয়া। সাকিবের পক্ষেও না বিপক্ষেও না, এটা যে ক্রিকেটারই করুক এটা তো বিশাল অপরাধ না। আইসিসির নিয়মে সে আইন ভেঙেছে, সেই হিসেবে সে অপরাধী। আমার কাছে মনে হয় এটা এতো বড় অপরাধ হিসেবে না দেখে দুটো সিরিজে নিষিদ্ধ করে তাকে সচেতন করে দিয়ে পরবর্তীতে একই ভুল করলে বড় শাস্তি দিলে সেটা দুই পক্ষের জন্যই সমান হতো।’

তিনি আরো বলেন, ‘আসলে এ ধরনের প্রস্তাব একবার আসুক আর বারবার আসুক অনেকেই মনে করেন যে, আসতে থাকুক আমার ঝামেলায় জড়ানোর দরকার নেই। একটা উদাহরণ দেই যে বাংলাদেশে তো অনেক প্রভাবশালীরা অন্যায় করেন, তবে আমরা দেখেও তো কিছু বলি না। কিন্তু অন্যায় দেখেও চুপ করে থাকাটাও তো অন্যায়। কিন্তু আমরা ঝামেলায় জড়াই না। এটাও অনেকটা সেরকম। অন্যায় করা আর অন্যায় দেখে চুপ করে থাকা দুইটার শাস্তি তো আর সমান হয় না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares