হাসপাতালে দিলো না স্থান, পরিত্যক্ত ঘরে সন্তান প্রসব করলেন প্রসূতি

গাইবান্ধায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ভর্তি হতে না পেরে শহরের ডিবি রোডের পরিত্যক্ত ঘরে সন্তান প্রসবের ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর। বুধবার (১২ আগস্ট) দুপুরে গাইবান্ধা পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম সময় সংবাদকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।এর আগে বুধবার রাতে প্রসব বেদনা উঠলে সাঘাটার বোনারপাড়া থেকে সিনএনজি চালিত অটোরিকশায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে রওনা দেন ভুক্তভোগীর পরিবার। সেখানে পৌঁছার পর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের পরিদর্শিকা সেলিনা বেগম কোনো পরীক্ষা ছাড়াই অন্তঃসত্ত্বা নারী জেমি আক্তারকে অন্যত্র যেতে বলেন। পরিবারের পক্ষ থেকে একাধিকবার অনুরোধ করা হলেও কর্ণপাত না করে উল্টো গালিগালাজ করে বের করে দেয়া হয় তাদের। পরে বিতাড়িত হয়ে শহরের ডিবি রোডের পরিত্যক্ত ঘরে মেয়ে সন্তান প্রসব করেন ওই প্রসূতি মা।পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার রাতের ঘটনাটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত। এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। এ ব্যাপারে ঘটনাটি তদন্তের জন্য জেলা কনসালটেন্ট ডা. ফারুক আজম নূরকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছি।এছাড়াও পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের পক্ষ থেকে উচ্চ পর্যায়ের আরও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং আগামীকালের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *